এইমাত্র
  • ভারতে গঙ্গাস্নানে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী-শিশুসহ ২২ জন নিহত
  • আজ মুসলমানদের সৌভাগ্যের রজনী, পবিত্র শবে বরাত
  • মির্জাপুর পরিদর্শনে দেশের ফার্স্ট লেডি ড. রেবেকা সুলতানা
  • আওয়ামী লীগ থেকে পদত্যাগ করলেন স্বামী-স্ত্রী
  • মিয়ানমার অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশের সঙ্গে যুদ্ধ করতে চাচ্ছে: র‌্যাব ডিজি
  • অবশেষে মায়ের কাছে নাভালনির লাশ হস্তান্তর
  • জাতীয় পার্টিকে বলা হয় গৃহপালিত রাজনৈতিক দল: জিএম কাদের
  • মার্কিন প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বিএনপির নেতাদের বৈঠক
  • সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  • ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা
  • আজ রবিবার, ১২ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
    দেশজুড়ে

    কোনো ক্রেতা ১ কেজির বেশি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন না

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:২৫ পিএম
    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:২৫ পিএম

    কোনো ক্রেতা ১ কেজির বেশি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন না

    সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক প্রকাশ: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:২৫ পিএম
    ফাইল ছবি

    ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের মেয়াদ তিন মাস বাড়িয়ে আগামী বছর ৩১ মার্চ পর্যন্ত ঘোষণা দেওয়ার পর দেশের বাজারে হু হু করে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। পেঁয়াজের এ উর্ধ্বমূল্য ঠেকাতে সভা করেছে হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসক। সভায় কোনো ক্রেতা এক কেজির বেশি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

    রোববার (১০ ডিসেম্বর) বিকেলে হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক দেবী চন্দ ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে এ বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। পেঁয়াজসহ নিত্যপণ্যের মূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখতে এ সভার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন।

    জেলা প্রশাসক দেবী চন্দের সভাপতিত্বে সভায় আরও কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেগুলো হলো- প্রতি কেজি পেঁয়াজের পাইকারি মূল্য ১২০ টাকা, খুচরা ১২৫ টাকা নির্ধারণ। পাইকারি ব্যবসায়ী থেকে খুচরা বিক্রেতারা ১-২ বস্তার বেশি পেঁয়াজ একসঙ্গে ক্রয় করতে পারবেন না। ক্রেতাগণও খুচরা বিক্রেতার কাছ থেকে ১ কেজির বেশি পেঁয়াজ ক্রয় করতে পারবেন না।

    এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের দেওয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- গৃহীত সিদ্ধান্তের ব্যত্যয় হলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আশাদুল হক , জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর হবিগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক দেবানন্দ সাহা ও জেলা কৃষি বিপণন কর্মকর্তা এনএম রেজাউল ইসলামকে জানাতে হবে।

    সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবুল মনসুর, ব্যবসায়ী নেতা দেওয়ান মিয়া, হবিগঞ্জ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সামছুল হুদা উপস্থিত ছিলেন।

    এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের দেওয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- গৃহীত সিদ্ধান্তের ব্যত্যয় হলে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর হবিগঞ্জ কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক, জেলা কৃষি বিপণন কর্মকর্তার কাছে বিষয়টি জানাতে হবে।

    সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবুল মনসুর, ব্যবসায়ী নেতা দেওয়ান মিয়া, হবিগঞ্জ ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সামছুল হুদা উপস্থিত ছিলেন।

    এফএস

    ট্যাগ :

    সম্পর্কিত:

    সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে পাওয়া যায়নি

    সর্বশেষ প্রকাশিত

    Loading…